ক্যানসারসহ নানা জটিল রোগের মুক্তিতে কাঁঠাল

লাইফ স্টাইল

ছোট বেলা থেকে জেনে আসছি আমাদের জাতীয় ফল কাঁঠাল। তবে ইংরেজি ‘জ্যাকফ্রুট’ নামটি এসেছে পর্তুগিজ শব্দ ‘জাকা’ থেকে৷ আমাদের অনেকের মধ্যে একটি অতীত ধারণা এখন বিরাজ করছে তা হলো কাঁঠাল খেলেই হজমের সমস্যা হয়।

কিন্তু এই ধারণা সাথে যুক্ত আছে কাঁঠালে গন্ধ যার জন্য খেতে পছন্দ করে না। কিন্তু এই কাঠালের রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। সেটা হয়তো অনেকের অজানা। আবার সুপারফুড কাঁঠালের মধ্যেই রয়েছে হাজারো রোগের সমাধান। আজকে জানবো সুপারফুড কাঁঠালের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে।

কাঁঠালে রয়েছে ভিটামিন সি, এ, বি-১, বি-২, ক্যালশিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, বিটা ক্যারোটিন সহ নানা ধরনের খনিজ উপাদান। শরীরের রোগ- প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে কাঁঠাল খেলে। এছাড়াও আছে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট।

শর্করায় পরিপূর্ণ এই ফলের ১০০ গ্রাম পরিমাণে থাকে প্রায় ৯৪ ক্যালরি! তাই কাঁঠাল খাওয়ার পর দুর্বলতা কেটে যায় ৷ তবে এই ফল না খাওয়াই ভালো ডায়াবেটিস রোগীদের।

কাঁঠালে আছে পরিমাণ প্রচুর পটাসিয়াম। যার ফলে হৃদযন্ত্র ভাল থাকে ৷ ঠিক রাখে রক্ত সংবহন পদ্ধতিও ।

কাঁঠাল পরিমিত পরিমাণে খেলে পরিপাক ক্রিয়ায় সাহায্য করে ৷ কারণ অন্যান্য ফলের চেয়ে কাঁঠাল বেশ ফাইবারসমৃদ্ধ।

শরীরকে টক্সিনমুক্ত রাখতে সাহায্য করে কাঁঠালের থাকা অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট৷ ফলে ক্যানসারের আশঙ্কা কম থাকে।

কাঁঠালে আছে ভিটামিন এ যা চোখ ভাল রাখে। এই ফল দৃষ্টিশক্তি উন্নত করে। এছাড়া ছানি এবং রেটিনার অন্যান্য অসুখকে প্রতিরোধ করে।

কাঁঠাল ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ একটি ফল। এই ফল হাড় মজবুত করে ৷ দূরে থাকে হাড়ের জটিল রোগের আশঙ্কা।

কাঁঠাল কার্যকরী থাইরয়েড এবং দূষণ থেকে হওয়া হাঁপানি সারাতে। কাঁঠালের বীজও শরীরের একাধিক সমস্যা দূর করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *